সারাদেশে কারাগারের নিরাপত্তা জোরদার উড়ো চিঠি বা ফোন কলের জেরে নয় বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। কাশিমপুর কারাগারে থেকে যাবজ্জীবন সাজা পাওয়া কয়েদির পালানোর ঘটনায় তদন্ত কমিটির সুপারিশেই এ পদক্ষেপ বলে দাবি মন্ত্রীর।

একইসঙ্গে তিনি বলেন, একটি কারাগারে যে উড়ো চিঠি এসেছে, সেটা যাচাইয়ের জন্য গোয়েন্দা সংস্থার কাছে পাঠানো হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, উড়ো চিঠি কিংবা কোনো প্রকার বিভ্রান্তিমূলক গুজবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কান দেয় না। আমরা সজাগ আছি। কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে সেটা যেন না ঘটে এবং আধুনিক করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা যেন ঢেলে সাজানো হয়।

লালমনিরহাট কারাগারে একটি উড়ো চিঠি এসেছে জানিয়ে তিনি বলেন, ওই কারাগারে এমন চিঠি সব সময়ই আসে। তারপরও চিঠিটি যাচাইয়ের জন্য গোয়েন্দাদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে মানবিক দিক বিবেচনায় গত মার্চে খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে ছয় মাসের জন্য তাকে মুক্তি দেয় সরকার। সেই মুক্তির মেয়াদ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আরও ছয় মাস বাড়িয়েছে সরকার।

এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়ার ভাইয়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তার দণ্ডাদেশ শর্তসাপেক্ষে আরও ছয় মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। তিনি এ সময় ঢাকায় থেকে চিকিৎসা নিতে পারবেন। তবে বিদেশ যেতে পারবেন না।

প্রসঙ্গত, রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) কারা মহাপরিদর্শক স্বাক্ষরিত চিঠি পাঠিয়ে কারা নিরাপত্তা জোরদারে তাগিদ দেওয়া হয়। চিঠিতে বিশেষ ফোর্স গঠন ও অস্ত্রের নিরাপত্তা, সিসিটিভি পর্যবেক্ষণ ব্যবস্থা, জঙ্গি, আইএস, শীর্ষ সন্ত্রাসী ও সংবেদনশীল মামলায় আটক বন্দিদের গতিবিধি কঠোর নজরদারিতে রাখাসহ ১৮টি নির্দেশনা দেওয়া হয়।

এর পেছনে দুষ্কৃতিকারীদের জঙ্গি-বন্দি ছিনিয়ে নেওয়ার হুমকি দিয়ে চিঠি পাঠানো এবং ফোনকলকে কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

অর্থসূচক/কেএসআর

The post উড়ো চিঠি যাচাই হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী first appeared on ArthoSuchak.

Leave a Reply

%d bloggers like this: