২০১৩ সালে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগে সকল প্রকার ক্রিকেট থেকে লম্বা নিষিদ্ধ হয়েছিলেন ভারতীয় পেসার শ্রীশান্ত শর্মা। অবশেষে আজ (১৩ সেপ্টেম্বর) নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেলেন ৩৭ বছর বয়সী এই ফাস্ট বোলার।

আগামীকাল (১৪ সেপ্টেম্বর) থেকে আর কোনো বাঁধা থাকছে না তার প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে অংশ নিতে। লম্বা সময় পর ক্রিকেটে ফেরার জন্য ‘মুক্তি’ পাওয়ায় বেশ খুশি শ্রীশান্ত। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাকে দেখা না গেলেও ঘরোয়া ক্রিকেট চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন এই পেসার।

আজ এ টুইটারে তিনি লিখেন, ‘আমি সকল প্রকার নিষেধাজ্ঞা থেকে এখন সম্পূর্ণরূপে মুক্ত। এখন থেকে আমি প্রতিটা বপ্লকেই সমান গুরুত্ব দেব হোক সেটা অনুশীলনেও। দলকে দেয়ার মতো আমার কাছে আর সর্বোচ্চ ৫-৭ বছর রয়েছে। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পরে আমি আবার খেলতে পারি, তবে জাতীয় দলে এখন আর খেলার জায়গা নেই। এমনকি আমি চলতি সপ্তাহে কোচিতে একটি স্থানীয় টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনাও করেছি যাতে আমি মাঠে নামতে পারি। যদিও করোনা ঝুঁকির দিকে নজর রেখে প্রথমে এর বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, কারণ কেরালায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিনদিন বাড়ছে।’

এর আগে ২০১৩ সালের আইপিএলে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগে যাবজ্জীবন নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল শ্রীশান্তকে। পরে গত বছর বিসিসিআইয়ের লোকপাল ডি কে জাইনের দ্বারা সেই শাস্তি কমিয়ে সাত বছর করা হয়েছিল।

ভারতের জাতীয় দলের হয়ে শ্রীশান্ত সর্বশেষ মাঠে নেমেছিলেন ২০১১ সালের আগস্টে। এরপর থেকে ইয়াকে আর আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেখা যায়নি। ২০১৩ সালের ৯ মে খেলেন নিষেধাজ্ঞার আগে সর্বশেষ ম্যাচ। জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ২৭টি টেস্ট, ৫৩টি ওয়ানডে এবং ১০টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন এই পেসার। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে খেলা তার ম্যাচের সংখ্যা ৪৪। আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে এ যাবৎ শিকার করেছেন সর্বমোট ১৬৯টি উইকেট। অপরদিকে আইপিএলের খেলে ঝুলিতে পুরেছেন ৪০টি উইকেট।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

The post মুক্ত হলেন শ্রীশান্ত first appeared on ArthoSuchak.

Leave a Reply

%d bloggers like this: