<

p style=”text-align: justify;”>ঢাকা: অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দফতর সম্পাদক (বহিষ্কৃত) কাজী আনিসুর রহমান আনিস ও তার স্ত্রী সুমি রহমানের বিরুদ্ধে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সেই মামলার কার্যক্রম হিসেবে তাদের আয়কর নথি জব্দ করেছে কমিশন। বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুদক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, গত বছরের ২৯ অক্টোবর দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১-এ তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন দুদকের উপ-পরিচালক গুলশান আনোয়ার। সেই মামলায় আনিসের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে ১২ কোটি ৮০ লাখ টাকার সম্পদের মালিক হওয়ার আর স্ত্রীর বিরুদ্ধে ১ কোটি ৩১ লাখ ১৬ হাজার ৫০০ টাকার অবৈধ সম্পদ থাকার অভিযোগ আনা হয়।

কাজী আনিসুর রহমান যুবলীগের দফতর সম্পাদক ছিলেন। তিনি যুবলীগ অফিসের পিয়ন থেকে কেন্দ্রীয় নেতা বনে যান। দুর্নীতি-মাদক-ক্যাসিনোবিরোধী শুদ্ধি অভিযান শুরু হলে তিনি আড়ালে চলে যান। কাজী আনিস কেন্দ্রীয় যুবলীগের কার্যালয়ে পিয়ন হিসেবে যোগ দেন ২০০৫ সালে। বেতন ছিল মাসে পাঁচ হাজার টাকা। সাত বছর পর হয়ে যান কেন্দ্রীয় যুবলীগের দফতর সম্পাদক। যুবলীগের সবশেষ কমিটিতে তাকে গুরুত্বপূর্ণ এ পদ দেন সংগঠনটির শীর্ষ নেতৃত্ব। ২০১২ সালে প্রথমে তাকে যুবলীগের উপদফতর সম্পাদক করা হয়। শীর্ষ নেতার আশীর্বাদ থাকায় ছয় মাস পর খালি থাকা দফতর সম্পাদক পদে পদোন্নতি পেয়ে যান আনিস।

চাঁদাবাজি, দরপত্র থেকে কমিশন ও যুবলীগের বিভিন্ন কমিটিতে পদবাণিজ্য করেই বিত্তবৈভব গড়ে তোলেন কাজী আনিস। এরপর আর তাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

The post যুবলীগ নেতা আনিসুর ও তার স্ত্রীর আয়কর নথি জব্দ

appeared first on Sarabangla | Breaking News | Sports | Entertainment.

Leave a Reply

%d bloggers like this: