আজ শেরপুরের শ্রীবরদী মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর মহান মুক্তিযুদ্ধে মিত্র বাহিনীর প্রবল আক্রমণে টিকতে না পেরে শেরপুরের শ্রীবরদী ছাড়তে বাধ্য হয় পাকহানাদার বাহিনী। পাকহানাদার বাহিনী ১৯৭১ সালে যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে ভায়াডাঙ্গা, কুরুয়া ও শ্রীবরদীতে ক্যাম্প গড়ে তুলে। ৪ ডিসেম্বর ধানুয়া কামালপুরে মিত্র বাহিনীর তোপের মুখে পড়ে শ্রীবরদীর দিকে অবস্থান নেয় পাকহানাদার বাহিনী ও তাদের দোসর রাজাকার এবং আল বদর সদস্যরা। ৬ ডিসেম্বর ভোরে ১১ নম্বর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল আবু তাহেরের নেতৃত্বে মিত্র বাহিনীর আক্রমণে টিকতে না পেরে শ্রীবরদীর লংগরপাড়া হয়ে জামালপুরের দিকে চলে যায় পাকহানাদার বাহিনী। এ দিনেই শ্রীবরদীর পুরাতন হাসপাতাল (বর্তমানে জেলা পরিষদ মার্কেট) চত্বরে স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলন করেন বীর প্রতীক বার জহুরুল হক মুন্সি ও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রেজ্জাকসহ সহযোদ্ধারা। শ্রীবরদী মুক্ত দিবস উপলক্ষে ৬ ডিসেম্বর নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

X